শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৯:৫৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
বাগেরহাটের যাত্রাপুর ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট সভা অনুষ্ঠিত বাগেরহাটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল স্বাধীনতা বিরোধীদের ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় সকলকে সতর্ক থাকতে হবে -শেখ তন্ময় এমপি বর্তমান সরকারকে ক্ষমতায় রেখে কোন আলোচনা হতে পারে না – ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম। বাগেরহাটে জেলা ওয়ার্কিং গ্রুপের সাথে স্থানীয় সরকারের কর্মকর্তাদের সভা ‘বাগেরহাটে ইউপি চেয়ারম্যানের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন ইউপি সদস্য’ ( ভিডিও) রমজানের চাঁদ দেখা গেছে, কাল রোজা বাগেরহাটে প্রতিবেশীদের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে কলেজ ছাত্রী ও মা বাগেরহাটে শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে মানববন্ধন বিএনপি দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত – শেখ তন্ময় এমপি




খুলনায় ইসলাম খান হত্যা মামলায় চার জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

খুলনা প্রতিনিধি
  • প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৭ আগস্ট, ২০১৯

 খুলনার ফুলতলা উপজেলার ইসলাম খান (৪৫) হত্যা মামলায় চার আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সাথে প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ডও দেওয়া হয়েছে। তবে আসামিদের সবাই পলাতক রয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) দুপুরে খুলনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা তৃতীয় আদালতের বিচারক বুশরা সায়েদা এ রায় ঘোষণা করেন।

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছেন ইসলাম মোল্লা (৩৫), কামাল শেখ (৩৫), মোস্তফা শেখ ওরফে মোস্ত (৫৫) ও হাসান গাজী (৫৫)। তারা সবাই ফুলতলা উপজেলার দামোদর গ্রামের বাসিন্দা।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০১০ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর দুপুর ১টার দিকে আসামিরা পরিকল্পিতভাবে ইসলাম খানকে ইসলাম মোল্লার বাড়িতে ডেকে নেয়। সেখানে পুরনো বিরোধের জের ধরে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে আসামিরা ইসলাম খানের ওপর চড়াও হয় এবং বুকে ও মাথায় কিল, ঘুষি, চড়, থাপ্পর ও লাথি মারে। এক পর্যায়ে ইসলাম খান মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে স্থানীয় লোকজন আহত অবস্থায় ইসলাম খানকে ফুলতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক পরীক্ষা শেষে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই নজরুল খান বাদী হয়ে ওইদিনই থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। তৎকালিন থানার ওসি দাউদ হোসেন তদন্ত শেষে ২০১০ সালের ১৪ নভেম্বর চার জনের নামে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। এরপর খুলনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে এ মামলার বিচার শুরু হয়। আদালতে এ হত্যা মামলার শুনানি চলাকালে ১৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। সবশেষে আজ মঙ্গলবার বিচারক এ মামলার রায় ঘোষণা করেন। রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত পিপি এস এম সাজ্জাদ হোসেন ও পলাতক আসামিদের পক্ষে স্টেট ডিফেন্স হিসেবে কামরুল আহসান মামলাটি পরিচালনা করেছেন।

image_pdfimage_print




সংবাদটি ভাল লাগলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো সংবাদ










© All rights reserved © 2019 notunbarta24.com
Developed by notunbarta24.Com
themebazarnotunbar8765