সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:১৬ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
বাগেরহাটে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল বাগেরহাটে ষড়যন্ত্রের হাত থেকে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে বাঁচাতে এলাকাবাসির মানববন্ধন ‘শত কোটিপতি ক্লাবে’ জাকারবার্গ’ বাগেরহাটে কমিউনিটি ব্যাংকের এটিএম বুথের উদ্বোধন পুলিশের গুলিতে নিহত মেজর সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন নোয়াখালীতে মানবিক পুলিশের সহযোগিতায় হুইলচেয়ার পেল ৪০ প্রতিবন্ধী এক নারীকে নিয়ে দুই স্বামীর দ্বন্দ্ব, সংঘর্ষে প্রাণ গেল প্রথম স্বামীর ফকিরহাট অনলাইন স্কুল: শিক্ষার নতুন দ্বার সাতক্ষীরায় মাদক ব্যবসায়ীদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত বাগেরহাটের রামপালে বন্দুকযুদ্ধে খুলনার শীর্ষ সন্ত্রাসী মিনা কামাল নিহত




শীতে পা ফেটে যায়? ঘরে বসেই যত্ন নিতে পারেন

নতুনবার্তা ডেস্ক
  • প্রকাশ: শুক্রবার, ১ নভেম্বর, ২০১৯

বাতাসে শীতের পরশ আসতে না আসতেই অনেকেরই পায়ের গোড়ালি ফাটতে শুরু করে। ঠান্ডা যত বাড়তে থাকে, পা-ও ফাটা শুরু হয় তত বেশি। শীতকালে ফাটা গোড়ালি যেমন দেখতে খারাপ লাগে, অনেকের জন্য সেটা যন্ত্রণারও।

যাদের পা ফাটার সমস্যা আছে, তারা সারাবছর পায়ের যত্ন নিতে ভুলবেন না। তাহলে শীতকালে অনেকটাই এড়াতে পারবেন এ সমস্যা। শীতে যাদের গোড়ালি ফাটে, তারা সারা বছর পায়ে ময়শ্চারাইজারের প্রলেপ দিতে পারেন।

শীতকালে অবশ্যই এর পরিমাণ বাড়াতে হবে। তবে সারা বছর ব্যবহার না করলেও এ সময় ব্যবহার করলে পা ফাটা থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। যাদের কাজের প্রয়োজনে বেশি হাঁটাহাঁটি করতে হয়, বা যারা দীর্ঘ সময় ধরে দাঁড়িয়ে থাকেন, তাদের পা ফাটার প্রবণতা আরো বেশি হয়।

তা থেকে বাঁচতে বাইরে বের হওয়ার আগেই উলের বা সুতির মোজা পরতে পারেন। সঙ্গে, পা ঢাকা জুতা পরতে একদম ভুলবেন না। বাড়িতেও স্লিপারের সঙ্গে সুতির মোজা পরে থাকা ভালো।

কর্মরতদের অনেকেই এখন সারা বছর পায়ে সুতির মোজা পরেন। এতে পা ভালো থাকে। কষ্ট হলেও গরমে যদি বাড়ির বাইরে বের হলে সুতির মোজা পরে থাকতে পারেন, তাহলে শীতকালে উপকার পাবেন।

অনেকটাই কমবে পা ফাটার সমস্যা। জুতা কিংবা মোজায় যেমন পায়ের আর্দ্রতা বজায় থাকে, তেমনই অন্যদিকে, জীবাণু থেকেও রক্ষা পায় পা। আরেকটি জিনিস পায়ের জন্য নিয়মিত করুন। হালকা গরম পানিতে পায়ের গোড়ালি ডুবিয়ে বসুন। তারপর ভালো করে পা মুছে ক্রিম লাগান।

সব চেয়ে ভালো হয়, যদি রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এটা করতে পারেন। মোছার পরে শুকনো পায়ে ক্রিম লাগিয়ে সুতির মোজা পরে ঘুমিয়ে পড়ুন। নইলে, অন্য যে কোনো সময় এটা করতে পারেন।

শুষ্ক বাতাসে পায়ের আর্দ্রতা কমে যাওয়ার জন্যই ত্বক ফাটতে শুরু করে। প্রয়োজনের তুলনায় পানি পান কম হলে বা দীর্ঘক্ষণ গরম পানিতে গোসল করলেও পা ফাটার প্রবণতা বাড়ে। যারা ঝামাপাথর দিয়ে জোরে জোরে ঘষে পা পরিষ্কার করেন, তাদেরও পা ফাটার আশঙ্কা অনেক বেশি।

image_pdfimage_print




সংবাদটি ভাল লাগলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ













© All rights reserved © 2019 notunbarta24.com
Developed by notunbarta24.Com
themebazarnotunbar8765