বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন




দাখিল পাসেই মধ্যপ্রাচ্যে চাকরি

স্টাফ রিপোর্টার :
  • প্রকাশ: শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০১৯

মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের আর বেকার বসে থাকতে হবে না। দাখিল পাস করলেই মধ্যপ্রাচ্যে চাকরির ব্যবস্থা নিশ্চিত হবে। এ লক্ষ্য বাস্তবায়নে মাদ্রাসা শিক্ষার কারিকুলাম পরিবর্তন করা হচ্ছে। পরিমার্জিত কারিকুলামে যুক্ত হচ্ছে কারিগরির নতুন ট্রেড এবং অ্যারাবিক স্পোকেন কোর্স। নিয়োগ করা হবে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষক ও জনবল। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, সেলাই ও ড্রেস মেকিংসহ কয়েকটি ট্রেড চালু থাকলেও বাধ্যতামূলক করা হয়নি সবার জন্য। তবে এবার বাধ্যতামূলক করা হবে। বিদেশে সংশ্লিষ্ট দেশের কারিগরি মান বিবেচনা করে তাদের সঙ্গে চুক্তি করে শিক্ষার্থীদের উন্নত কারিগরি শিক্ষা দেওয়া হবে। মানসম্মত কারিগরি শিক্ষার পাশাপাশি অ্যারাবিক স্পোকেন কোর্স যুক্ত করা হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যে তাদের চাকরি পাওয়ার নিশ্চয়তা তৈরি করতে। সে কারণেই স্পোকেন কোর্স যুক্ত করা হবে মাদ্রাসা শিক্ষা কারিকুলামে। কারিগরি ট্রেড পরিচালনার জন্য প্রশিক্ষকসহ প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগ করা হবে কোর্স পরিচালনার জন্য। মাদ্রাসা শিক্ষার কারিকুলামে কী কী যুক্ত করা হবে তা চূড়ান্ত করা হবে জাতীয় কর্মশালা করে।
শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান নওফেল বলেন, ‘দেশের মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা যাতে কর্মে নিযুক্ত হতে পারে সেজন্য সরকার মাদ্রাসা শিক্ষাক্রমের পরিমার্জনে কাজ করছে। সাধারণ মাদ্রাসাগুলোতে কারিগরি বিভিন্ন ট্রেড খোলা হচ্ছে। মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা যাতে প্রাচীন আরবি ভাষার পাশাপাশি আধুনিক প্রচলিত আরবি ভাষায় দক্ষতা অর্জন করে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে কাজ করতে পারে সেজন্য ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’
সদ্য বদলি হওয়া কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব (বর্তমানে নির্বাচন কমিশন সচিব) মো. আলমগীর বলেন, ‘মাদ্রাসা শিক্ষার কারিকুলামে পরিবর্তন আনা হচ্ছে। কারিকুলাম পরিমার্জন করে মাদ্রাসায় নতুন ট্রেড খোলা হবে। বিদেশি শিক্ষক এনেও প্রশিক্ষক দেওয়া হবে কারিগরি শিক্ষার্থীদের।’ তিনি বলেন, ‘মাদ্রাসা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর জন্য পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। শিক্ষক নিয়োগ করার ব্যবস্থা হয়েছে। শিক্ষকদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। শিক্ষার মান বাড়াতে কারিগরি প্রশিক্ষণের জন্য তিন হাজার শিক্ষককে বিদেশে পাঠানো হবে। বৈদেশিক ফান্ড সংগ্রহের চেষ্টা হচ্ছে। কারিকুলাম আপডেট করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে।’
সদ্য বদলি হওয়া মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ কে এম ছায়েফ উল্যা বলেন, ‘৩৮১টি মাদ্রাসায় সেলাই কোর্ড ও ড্রেস মেকিংসহ কিছু ট্রেড চালু আছে। নতুন করে ফুড টেকনোলজি, কম্পিউটার অপারেটিং, ওয়েল্ডিং ও মেকানিক্যাল ট্রেড যুক্ত করা হবে। কারিগরি ট্রেড বাধ্যতামূলক করা হবে। দাখিল পাস করার পর যাদের লেখাপড়া করার সামর্থ্য নেই তাদের জন্য চাকরি নিশ্চিত করতে দাখিলে কারিগরি ট্রেড যুক্ত করা হবে। তিনি আরও বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের কর্মমুখী করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে পাঠ্য বইয়ে কারিগরি ট্রেড যুক্ত করে মাদ্রাসা ও সাধারণ জাতীয় পর্যায়ে সেমিনার করে কী কী ট্রেড যুক্ত হবে তা চূড়ান্ত করা হবে।’

image_pdfimage_print




সংবাদটি ভাল লাগলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ













© All rights reserved © 2019 notunbarta24.com
Developed by notunbarta24.Com
themebazarnotunbar8765