সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১১:০৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
বাগেরহাটে আন্তর্জাতিক মাদক বিরোধী দিবস পালিত বাগেরহাটে মাতৃত্বকালীন ভাতা প্রদান কর্মসূচির উপকারভোগীদের প্রশিক্ষন শুরু দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের দাত ভাঙ্গা জবাব দেয়া হবে – শেখ তন্ময় এমপি চিতলমারীতে বিক্ষোভকারীদের ইটের আঘাতে কৃষকলীগ নেতা আহত বা‌গেরহা‌টে জেলা প্রশাস‌নের সা‌থে সরকারী বিদ‌্যাল‌য়ের অ‌ভিভাবক‌দের মত‌বি‌নিময় বাগেরহাট সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক পরিষদের কমিটি গঠন বাগেরহাটে পরিবার পরিকল্পনা সেবার মান উন্নয়নে ওয়ার্কিং কমিটির সভা বাগেরহাটে মহানবী (সাঃ)কে কটুক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভ ব্ল্যাকমেইল করে দেড় মাস ধর্ষণ, অভিযুক্তকে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করল দশম শ্রেণির ছাত্রী! নবী মোহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে কটূক্তি করায় বিজেপি নেতা গ্রেপ্তার




মস্তিষ্ক বিকল করে দেয়- এবার পাওয়া গেল এমন মশা

নতুনবার্তা ডেস্ক
  • প্রকাশ: বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

মশা কেবল উপদ্রবই করে না, এর কামড়ে শারীরিক অসুস্থতা থেকে শুরু করে চিকুনগুনিয়া কিংবা ডেঙ্গু জ্বরের কারণে মৃত্যুর ঘটনা পর্যন্ত অহরহ ঘটছে। চলতি বছর ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা মাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার পর জনমনে রয়েছে ব্যাপক রকম আতঙ্ক। আমাদের দেশেও বহু মানুষ মারা গেছে এডিস মশার কামড়ে। এখনো অনেকেই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এরই মধ্যে জানা গেল, যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় নতুন প্রজাতির মশার সন্ধান পাওয়া গেছে। গত ২৫ জুলাই ফ্লোরিডার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, বিরল এক ধরনের মশাবাহিত রোগের কথা। ওই ভাইরাসের নাম ইস্টার্ন ইকুইন এনসেফালাইটিস বা ইই্ই ভাইরাস। প্রথমে এটা ধরা পড়ে মুরগির শরীরে। এরপর সেগুলো মশার মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

চলতি বছর এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে কেবল সাতজন ওই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এটা আরো বিশদভাবে ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি রয়েছে।

ইইই ভাইরাসে কেউ আক্রান্ত হলে ধীরে ধীরে মস্তিষ্ক বিকল হতে থাকে। এমনকি সম্পূর্ণ স্মৃতিশক্তি নষ্ট হয়ে যেতে পারে আক্রান্ত ব্যক্তির। যারা আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়েছেন, তারাও বিকলাঙ্গ হয়ে পড়েছেন।

চিকিৎসকরা বলছেন, এ রোগ থেকে যারা আরোগ্য লাভ করেছেন, তাদের অনেকেই গুরুতর বুদ্ধিগত দুর্বলতা, ব্যক্তিগত তথ্য ভুলে যাওয়া, খিঁচুনি, পক্ষাঘাত এবং মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা অনেকাংশে হারিয়ে ফেলেছেন।

মশার কামড়ের চার থেকে ১০ দিনের মধ্যে রোগের লক্ষণ দেখা দেয়। শুরুতে মাথাব্যথা, জ্বর, ঠান্ডা লাগা, বমি বমি ভাব থাকলেও হার্ট অ্যাটাক কিংবা কোমায় চলে যাওয়ার ঘটনা ঘটতে পারে।

এখন পর্যন্ত এ রোগের কোনো ধরনের ভ্যাকসিন কিংবা ওষুধ আবিষ্কার হয়নি।

সে কারণে বিশেষজ্ঞরা নিরাপদ থাকার কিছু পরামর্শ দিয়েছেন। বাড়ির পাশের নালা ও ফুলের টব পরিষ্কার রাখার কথা বলছেন তারা। সেই সঙ্গে লম্বা জামা-কাপড় পরিধান করলে ভালো হয়।

বিশেষজ্ঞরা আরো বলছেন, বাড়ি থেকে বের হওয়ার আগে মদ্যপান না করা ভালো। সুগন্ধী ব্যবহার না করলে অনেকটা নিরাপদ থাকা যায়। গরমকালে বাইরে তাঁবু করে না থাকার কথাও বলছেন তারা।

image_pdfimage_print




সংবাদটি ভাল লাগলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো সংবাদ










© All rights reserved © 2019 notunbarta24.com
Developed by notunbarta24.Com
themebazarnotunbar8765